প্রতিদিন আপনাকে ভালো রাখবে ১0টি “জাদুকরী” সুগন্ধ

প্রকাশের সময়: ১১:৪৯ পূর্বাহ্ন - রবি, নভেম্বর ৫, ২০১৭

01

স্পোর্টস লাইফ, ডেস্ক : ভালো থাকতে কে না চায় বলুন? পৃথিবীর প্রতিটি মানুষই চায় ভালো থাকতে। কিন্তু ভালো থাকার জাদুমন্ত্রটি অনেক খুঁজেও পায়না কেউ। অথচ আপনি চাইলে খুব সহজেই জীবনটাকে আরো একটু সুন্দর করে তুলতে পারবেন। জানতে চান কী সেই জাদুমন্ত্র? মাত্র ১0টি সুগন্ধ বদলে দিতে পারে আপনার জীবনকে।

এই সুগন্ধ গুলো নিমিষে ভালো করে দিতে পারে আপনার মন, দূর করতে পারে মাইগ্রেন কিংবা ইনসমনিয়া,বারাতে পারে বুদ্ধি, কমায় মানসিক চাপ ও ওজন। প্রকৃতির এই অনন্য সুগন্ধ গুলো মুহূর্তের মাঝে বদলে দিতে পারে আপনার জীবনকে। আরো বেশি সুখী ও আনন্দময় করে তুলতে পারে আপনার প্রতিদিন। আসুন জেনে নেয়া যাক এই সুগন্ধগুলো সম্পর্কে।

ঘুমাতে সহায়ক ল্যাভেন্ডার: ল্যাভেন্ডার মনকে শিথিল করে এবং ঘুমাতে সহায়তা করে। যাদের ইনসমনিয়া আছে তাঁরা ল্যাভেন্ডারের সুবাস নিলে ঘুম ভালো হবে। একটি গবেষণায় ৪২ জন কলেজ ছাত্রীর উপর গবেষণা করে দেখা গিয়েছে যে ল্যাভেন্ডারের সুবাস তাদের মানসিক চাপ কমিয়ে ঘুমাতে সহায়তা করছে।

মস্তিষ্ককে তীক্ষ্ণ করবে দারুচিনি: দারুচিনি মস্তিষ্ককে তীক্ষ্ণ করে তো এবং বুদ্ধিমত্তা বাড়িয়ে তোলে। গবেষকরা হুইলিং জেসুইট বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষণায় দেখতে পান যে অংশগ্রহণকারীরা দারুচিনির সুগন্ধ নিলে তাদের স্মরণশক্তি ও বুদ্ধিমত্তা বৃদ্ধি পায়।

মানসিক চাপ কমাবে পাইন: পাইন মানসিক চাপ কমাতে সহায়তা করে। যারা প্রচন্ড মানসিক চাপে থাকেন তাঁরা পাইনের সুগন্ধ নিলে মনটা অনেকটাই হালকা অনুভূত হয়। এই বিষয়ে জাপানের একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে যারা মানসিক চাপে ভুগছিলেন তাঁরা পাইনের সুবাস গ্রহণ করার পর মানসিক চাপ ও বিষণ্ণতার থেকে অনেকটাই রেহাই পেয়েছেন।

মনকে খুশি করবে তাজা ঘাস: তাজা ঘাসের গন্ধ মনটাকে নিমিষেই ফুরফুরে করে দেয়। মাত্র কাটা তাজা ঘাস অথবা ঘাসের রসের গন্ধ মস্তিষ্কে ভালো লাগার অনুভূতি সৃষ্টি করে এবং মনটাকে নিমিষেই ভালো করে দেয়।

চাঙা করবে সাইট্রাস: লেবু, কমলা ইত্যাদি সাইট্রাস জাতীয় ফল শরীরকে চাঙা করতে ভূমিকা রাখে। শরীর দূর্বল লাগলে সাইট্রাসের সুবাস গ্রহণ করলে নিমিষেই চাঙা হয়ে যায় শরীর। সাইট্রাস মস্তিষ্ককে সচল করে শরীরের ক্লান্তি অনেকটাই দূর করে দেয়।

মন ভালো করবে ভ্যানিলা: ভ্যানিলার অসাধারণ সুবাস মন ভালো করে দেয় খুব সহজেই। মন খারাপ থাকলে ভ্যানিলার সুবাস গ্রহণ করলে নিমিষেই অনেকটাই ভালো হয়ে যায় মন। একটি গবেষণায় প্রকাশিত হয় যে ভ্যানিলা বিনের সুবাস গবেষণায় অংশগ্রহণকারীদের মনকে শিথিল করে এবং ভালো লাগার অনুভূতি সৃষ্টি করে মস্তিষ্কে।

মনোযোগ বাড়াবে পুদিনা: পুদিনা পাতার সুবাস মনোযোগ বাড়াতে সহায়ক। হুইলিং জেসুইট বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে যারা পুদিনা পাতার সুবাস নিয়েছেন তাঁরা অন্যদের তুলনায় বেশি মনযোগী ও কাজে কর্মে বেশি আগ্রহী।

বিষণ্ণতা কমাবে জেসমিন: জেসমিনের মিষ্টি সুবাস কে না ভালোবাসে বলুন? এই মিষ্টি সুবাস বিষণ্ণতা দূর করে দেয় খুব সহজেই। ২০১০ সালের একটি গবেষণায় জানা যায় যে জেসমিনের সুবাস মস্তিষ্ককে সচল করে এবং বিষণ্ণতা সৃষ্টি করে যেসব চিন্তা ভাবনা সেগুলোকে দূর করে ইতিবাচক চিন্তা করতে সহায়তা করে। ফলে বিষণ্ণতা কমে যায় অনেকটাই।

মাইগ্রেন সারিয়ে দেবে আপেল: ‘দিনে একটি আপেল খেলে ডাক্তারের প্রয়োজন নেই’ এই কথাটি তো এর আগেও শুনেছেন। আপেলের সুবাসও যে মাইগ্রেন সারিয়ে দিতে পারে সেটা কি জানতেন? ২০০৮ সালের একটি গবেষণায় মাইগ্রেনের ব্যাথায় আক্রান্ত অংশগ্রহণকারীদের উপর গবেষণা চালিয়ে দেখা গিয়েছে যে আপেলের সুবাস মাথা ব্যথা কমাতে সহায়ক।

ক্ষুধা কমাবে অলিভ অয়েল: অলিভ অয়েলের সুবাস ক্ষুধা কমাতে সহায়তা করে। বিশেষ করে অলিভ অয়েল দিয়ে প্রস্তুত করা খাবারের সুবাস নেয়ার পর খেতে মজা হলেও সেই খাবার তুলণামূলক ভাবে কম খাওয়া হয়। জার্মান রিসার্চ সেন্টার ফর ফুড কেমেস্ট্রির গবেষণায় জানা যায় যে অলিভঅয়েলের সুবাস মানুষকে অল্প খেয়েই তৃপ্তির অনুভূতি দেয়। ফলে কম খাওয়া হয় এবং শরীরে কম ক্যালরি যোগ হয়।

উপরে